রবীন্দ্রনাথের ভৃত্যকুল ২

রবীন্দ্রনাথের ভৃত্যকুল (শেষ পর্ব) আর এক ভৃত্য মহাদেব–কে নিয়ে একটা মজার গল্প আছে। রবীন্দ্রনাথ সাধারণত রাত্রে শোবার সময়ে জানলা খুলে রাখতেন। সেদিন গরমকাল, আকাশে জ্যোৎস্না। মহাদেব শুয়েছে কবির ঘরের বাইরে খোলা দরজার সামনে। রাত গভীর, চরাচর নিঝুম। মাঝরাতে খোলা জানলা দিয়ে চাঁদের আলো এসে পড়েছে কবির মুখে। ঘুম ভেঙে গেল। মহাদেবকে ডেকে বললেন, ‘ওরে চাঁদটা […]

রবীন্দ্রনাথের ভৃত্যকুল

রবীন্দ্রনাথের ভৃত্যকুল প্রথম পর্ব বলা যায় জন্মমুহূর্ত থেকেই রবীন্দ্রনাথ ভৃত্যহস্তে সমর্পিত। ভৃত্যদের সম্পূর্ণ অধীন হয়েই কেটেছিল তাঁর শৈশব এবং কৈশোরের দিনগুলি।  তারপরেও, জীবনের শেষদিন পর্যন্ত অসংখ্য ভৃত্য তাঁকে সেবা করবার সুযোগ পেয়েছে। জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়ির বিশাল পরিবারের ছোটো ছেলেমেয়েদের প্রতি আলাদা ভাবে নজর রাখা বা স্নেহযত্ন প্রকাশ করবার রীতি ছিল না, বোধহয় সম্ভবও ছিল না। উপরন্তু সেকালে […]

গীতবিতান তথ্যভাণ্ডার

নমস্কার, গীতবিতান তথ্যভাণ্ডারের জগতে আপনাকে স্বাগত রবীন্দ্রনাথ আর তাঁর গান নিয়েই আমাদের পথ চলা। সেই গান আমাদের দেয় মনের শান্তি প্রাণের আরাম। জীবনের যেকোনো পরিস্থিতিতে রবীন্দ্রসংগীতই আমাদের আশ্রয়। গানের ভিতর দিয়েই রবীন্দ্রনাথের সঙ্গে আমাদের পরিচয়। তাই গীতবিতান সমস্ত রবীন্দ্রপ্রেমীদের প্রাণের সম্পদ। তাঁর গান শুনে আমাদের দিন শুরু হয়,আর দিন শেষ হয় সেই গানের সুরেই। কিন্তু […]

অভিনেতা রবীন্দ্রনাথ

ইন্দিরা দেবীর কথায় ঠাকুরবাড়ির দুই শ্রেষ্ঠ অভিনেতা ছিলেন রবীন্দ্রনাথ ও দিনেন্দ্রনাথ। বিসর্জন নাটকের অভিনয়ে প্রথম পর্যায়ে (১৮৯০-১৯০০)  রবীন্দ্রনাথ অভিনয় করতেন রঘুপতির চরিত্রে। উত্তরকালে ১৯২৩ এ  অ্যাম্পায়ার  রঙ্গমঞ্চের অভিনয়ে তিনি ছিলেন জয়সিংহের ভূমিকায়। দুই বয়সে দুই চরিত্রে অভিনয়ের Photograph  দুটি নিশ্চয়ই আপনাদের সকলের স্মৃতিতে রয়েছে। প্রথমটিতে উন্নত  ললাট, দাম্ভিক-দৃপ্ত অথচ ঋজু ব্যক্তিত্বের আকস্মিক বিপন্নতায়  হাহাকাররত রঘুপতি, […]

হুঙ্কার

১৯০৮ সাল। স্বদেশী আন্দোলেন আগুন জ্বলছে সারা দেশে। ইংরাজের উৎপীড়নের শিকার হয়ে একের পর এক নেতা ও বিপ্লবী অকারণে কারারুদ্ধ হচ্ছেন। ইংরাজের The Code of Criminal procedure Act 1898 (Indian Penal Code 124A) ধারায় সংবাদপত্রগুলির স্বাধীনতা ইতিমধ্যেই কেড়ে নেওয়া হয়েছিল। ১৯০৮ সালের জুন মাসে Newspaper Act  এর মাধ্যমে সেই আইনকে আরও কঠোরভাবে বলবৎ করবার ব্যবস্থা […]

গান গেয়েছিলেম

স্থান শান্তিনিকেতন। একদিন এক রাতে তিনি ডেকে পাঠিয়েছেন এক নবীন সাহিত্যিককে। নবীন তখন মশারির মধ্যে ঘুমের আয়োজনে ব্যস্ত। এদিকে তিনি ডেকে পাঠিয়েছেন, তাই তড়িঘড়ি করে প্রায় দৌড়তে দৌড়তে এসে তাঁর সামনে গিয়ে দাঁড়াতেই তিনি বললেন,‘বোসো’। অনুমতি পেয়ে নবীন সাহিত্যিক তাঁর মুখোমুখি বসলেন। মুখে কোনো কথা নেই তাঁর।তিনি ফের বললেন,‘তুমি আমার গান শুনবে?’একথা শুনে নবীন সাহিত্যিক খুবই আশ্চর্য […]

Tagore, You May Know

Rabindranath Tagore is about ‘Where the mind is without fear and the head is held high…Where words come from the depth of truth’ etc.  It is not Mr. Amir Khan alone who thinks this.  So does, in fact, everyone else who has read him in any language.  Well, these lines are something worthwhile for a […]

ভবতারিণী থেকে মৃণালিনী

যশোরের ফুলতলি গ্রামের মেয়ে দশবছরের ভবতারিনীর ডাকনাম ফুলির বিবাহ হল ১২৯০ বঙ্গাব্দে ২২ বছরের তরুণ কবি বাবু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সঙ্গে। অসাধারণ রূপবান, য়ুরোপ ঘুরে এসেছেন এবং আধুনিক শিক্ষায় শিক্ষিত প্রগতিশীল স্বদেশী ও বিদেশী সুন্দরীদের সান্নিধ্যও হয়েছে। বনফুল, ভগ্নহৃদয়, য়ুরোপ প্রবাসীর পত্র রচয়িতা রবীন্দ্রনাথ। ভানুসিংহের পদাবলী রচনাও সমাপ্ত। ভবতারিনীর সামান্য শিক্ষা গ্রামের পাঠশালায়। বিয়ের সময়েই হল […]

শেষ গানেরই রেশ

১৩৪৭ সালের শেষলগ্নে অসুস্থ রবীন্দ্রনাথ রয়েছেন শান্তিনিকেতনে। দিন কাটছে রোগশয্যায়, কখনো কেদারায়, কখনো বিছানায়। এক নাগাড়ে বেশীক্ষণ কথা বলতে পারছেন না, নিজের হাতে লেখালেখিও প্রায় বন্ধ। অথচ তখনও চলছে তাঁর বিচিত্র সাহিত্যসৃষ্টির কাজ। রচনা করেছেন রোগশয্যায় (৫ পৌষ ১৩৪৭), জন্মদিনে (১ বৈশাখ ১৩৪৮), গল্পসল্প (২৭ বৈশাখ ১৩৪৮) ইত্যাদি কাব্যগ্রন্থ। এরই মধ্যে শুরু হল নববর্ষ আর […]

অনিচ্ছার গান

বয়স যখন কম ছিল, যখন স্বরযন্ত্রের অত্যাধিক অত্যাচারে তাঁর সুমিষ্ট কণ্ঠস্বর নষ্ট হয়নি, সেই সময়ে রবীন্দ্রনাথকে নানা সভা এবং অনুষ্ঠানে জনতার আবেদনে গান গাইতে হত। বরং বলা যায় তাঁর গান শোনবার জন্যই বোধহয়  সেইসব সভায় ভীড় জমাতেন সমস্ত শ্রেণীর মানুষ। রবীন্দ্রনাথ সেটি জানতেন, তাই সবসময়ে তাঁর পকেটে থাকত একটা ছোট্টো গানের নোটবুক। গান গাইবার জন্য […]